Uncategorized

মরে গেলেও ব্যবসা করার সময় এই ৫টি ভুল করবেন না

মরে গেলেও ব্যবসা করার সময় এই ৫টি ভুল করবেন না
দেখবেন আমরা বিজনেস শুরু করার কথা ভাবলেই সবার প্রথম কিছু আজব সমস্যার সম্মুখীন হই সবার প্রথম যে কোন বিষয়টিতে ভুগি সেটি হলো আমরা আমাদের আশেপাশে কিছু মানুষকে দেখিয়ে তারা অনেক ভালো বিজনেস করে যাচ্ছে তখন মনে হয় আমি নিজেও বিজনেস শুরু করে দেই কিন্তু তার 21 দিন পর যখনই সে বিজনেসটা নিয়ে একটু চিন্তা করে শুরু করি মানে বিজ্ঞেস্ট কিভাবে শুরু করা যায় তখনই আর কোন কিছু গুছিয়ে উঠতে পারি না সবকিছু কেমন যেন কঠিন আর অগোছালো মনে হয় আবার দ্বিতীয় সমস্যাটি কেমন হয় অনেক কেঁদেছি বিজনেস করে ধ্বনিত হয়ে যাচ্ছে ঠিকই কিন্তু সেটি আসলে কি বিজনেস করছে আর কিভাবে ধনী হয়ে যাচ্ছে সেটি বুঝতে পারছি আর তৃতীয় সমস্যাটি হয় এমন অনেক কেঁদেছি বিজনেস শুরু করার সাথে সাথেই বিজনেসে লস কে বসে আছে আর এটি দেখে কি আর বিজনেস করবো বিজনেস নিয়ে প্রচন্ড পরিমানে তৈরি হয় মনের মধ্যে আর মনে মনে এটাই ভাবছি দিয়ে বিজনেস হলেও আমাকে দিয়ে হবেনা দেখুন এত সমস্যার পরও হাজার হাজার মানুষ বিজনেস কিন্তু শুরু করে দিচ্ছে প্রতিদিন যেটি আসলেই খুব ভালো কথা কিন্তু সমস্যাটি হল এর মধ্যে নাইটি থেকে নাইট মানসী বিজনেস এর সম্মুখীন হয় তাদের সকল সময়ে এনার্জি
মরে গেলেও ব্যবসা করার সময় এই ৫টি ভুল করবেন না
এবং টাকা সবকিছুই ব্যয় করে ফেলে তারপর সাকসেস পাই না এখন কথা হলো এমন আসলে হয় কেন এর আসল কারণ হলো তারা তাদের বিজনেসে এমন কিছু ভুল করে যেটি তারা নিজেরাও বুঝতে পারে না আর তাদের সেই সকল ভুলগুলোই তাদের সকল কষ্ট সময় আর অর্থ কে নষ্ট করে বিজনেস নষ্ট করে দেয় এরপর অনেকের এমন অবস্থা হয়েছে যে পরবর্তীতে বিজনেস শুরু করবে সে কথা চিন্তাই করতে পারে না আর তাই এখন আমি আপনাদের সাথে এই বিজনেস নিয়ে এমন পাঁচটি বিষয় শেয়ার করব যার একটি ভুলেও যদি আপনি আপনার বিজনেসের একবার করে ফেলেন তাহলে আপনার বিজনেস শেষ আমি ভিডিওটি খুব ইজি করে আপনাদের সাথে শেয়ার করব তাই একটু মনোযোগ দিয়ে বিষয়গুলো ভজন সবার প্রথম যে বিষয়টি সেটি হল কমান্ড অফ কন্ট্রোল মানে আপনার বিজনেস এ আপনার নিজের কন্ট্রোল কতটুকু রয়েছে বিষয়টি অনেকের অনেকের ভিডিওতে বুঝিয়ে বলেছেন তারপরও এই বিষয়টি আসলে কি সেটি বেশিরভাগ মানুষ বুঝতেই পারেনি কারন আপনারা ভেবেছেন বিজনেসের কন্ট্রোল বলতে বোঝানো আপনার বিজনেসের অর্ডার আপনি দিবেন ভালো মন্দ সবকিছুই আপনিতো বুঝবেন তাহলে কন্ট্রোল তো আপনার হাতেই কিন্তু কমেন্ট অফ কন্ট্রোল বলতে এই বিষয়টি বুঝানো হয়নি এখানে কন্ট্রোল বলতে
বোঝানো হয় আপনি কম্পিউটারের বিজনেস করেন আর কম্পিউটারের সকল পার্স পাতি আপনি ইমপোর্ট করেন এখন এমন একটি সময় আসলো আপনার বিজনেসের আপনি যে কোম্পানির কাছ থেকে প্রোডাক্ট সেই কোম্পানি আপনাকে মাদারবোর্ড সাপ্লাই দিতে পারছি না অন্য কোন পার সাপ্লাই করতে পারছে না তখন কি আপনি সেই পরিস্থিতিতে দ্বিতীয় কোন অপশন হাতে রেখেছেন কিনা মানে আপনার বিজনেসের কন্ট্রোল কি শুধুমাত্র একটি কোম্পানির কাছে আটকা না আপনি অপশন হাতে রেখে দিয়েছেন যেন আপনার বিজনেসের সম্পূর্ণ কন্ট্রোল আপনার হাতেই থাকে আবার ধরুন আপনি অনলাইনে অ্যামাজন ফ্লিপকার্ট বা তারা যে প্রোডাক্ট সেল করেন এখন যদি এই কমার্স সাইট গুলো তাদের কোন পলিসি চেঞ্জ করে আর সেই কারনে যদি আপনার প্রোডাক্ট সেল করা বন্ধ হয়ে যায় তখন কি হবে মানে এক্ষেত্রে আপনার বিজনেসের সম্পূর্ণ কন্ট্রোল আপনার সেই ই-কমার্স সাইট গুলোর হাতেই এখানে আপনার হাতে আপনার বিজনেসের কোন আবার ধরুন
মরে গেলেও ব্যবসা করার সময় এই ৫টি ভুল করবেন না
আপনি একটি রেস্টুরেন্ট দিয়েছেন এবং আপনার রেস্টুরেন্টে খুব ভালো চলে কারন আপনার রেস্টুরেন্টের খাবার খুবই টেস্টি এখন এমন কোন সময় আসলো যখন আপনার আর এখানে কাজ করতে চাইছে না বা যে কোন কারনেই হোক সে চলে যাবে এখন কি
আপনি সেই পরিস্থিতিতে সেই লেভেলের কোন খাতে রেখেছেন কিনা বা খুব চলে গেলে আপনি কি সেই মুহূর্তে দ্রুত একটি ভালো কাজ করতে পারছেন কিনা যদি পারেন তাহলে আপনার বিজনেসের কন্ট্রোল আপনার হাতে নিচ্ছে আর যদি না পারেন তাহলে আপনার বিজনেসের কন্ট্রোল শিক্ষকের হাতে রয়েছে আশা করি বিজনেসের এই কমান্ড অফ কন্ট্রোল এর বিষয়টি আপনাদের এখনো বুঝতে অসুবিধা হবে না দ্বিতীয় যে ভুলটি হয় সেটি হলো এন্ট্রি ব্যারিয়ার মানে আপনি যেই বিজনেস ঠিক করছেন সেই বিজনেস টি অন্য কারো পক্ষে করাটা কতটা সহজ বা কঠিন যদি অন্য কারো পক্ষে সৃষ্টি করা খুবই সহজ হয় তাহলে আপনার বিজনেস টি সম্পূর্ণ দেখতে রয়েছে ধরুন আপনি একটি রেস্টুরেন্ট দিয়েছেন এখন দেখুন রেস্টুরেন্ট দেওয়া কিন্তু খুব একটা কঠিন কাজ নয় টাকা থাকলে যেকেউ রেস্টুরেন্ট দিতে পারে তারমানে এভাবে চিন্তা করলে এখানে কোন এন্ট্রি ব্যারিয়ার নেই কিন্তু যদি বিষয়টি এমন হয় রেস্তুরেন্ত অনেকেই দিয়েছে কিন্তু আপনার রেস্টুরেন্টের মত এত টেস্টি খাবার অন্য কোন রেস্টুরেন্টে নেই তাহলে এক্ষেত্রে কাস্টমাররা খাবার কোথায় যাবে আপনি ভাবুন এখানে এই যে আপনার রেস্টুরেন্টের খুব বেশি টেস্টি খাবার এটাই হলো আপনার
বিজনেসের জন্য এন্ট্রি ব্যারিয়ার মানে অন্য কেউ চাইলেই আপনার মত খাবার তৈরি করতেও পারবে না আর সেই এরিয়ায় আপনার চেয়ে ভালো বিজনেস অন্য কারো পক্ষে করা সম্ভব নয় এক্ষেত্রে আপনার বিজনেস যেখানে খুশি হয়েছে তাই অবশ্যই আপনি যেই বিজনেস কি করছেন বা করবেন বলে ভাবছেন সেখানে আপনি এমন একটি স্মার্ট সার্ভিস দেখলাম করেন যেটি অন্য কেউ চাইলেই করতে পারবে না আর বিশ্বাস করুন বিজনেস করাটাই কিন্তু অরিজিনাল বিজনেস নিয়ে এভাবে চিন্তা করাটাই হল আসল বিজনেস চলুন পরবর্তীতে জানা যায় সেটি হল customer’s নিড মানে কাস্টমাররা আপনার কাছে এগজ্যাক্টলি কি চাই সেটি হল বিজনেস এক্ষেত্রে আমরা যেটি করি এক্ষেত্রে আমরা সেই ভুলটি করি বাজারে যে প্রশ্নগুলো এভেলেবেল আমরা ঠিক সেগুলো নিয়ে বিজনেস করার চিন্তা করি এখন আপনিই বলুন কেন আপনার বিজনেস রিস্ক থাকবেনা কাস্টমারদের আসলে এগুলো নয় কারণ কাস্টমাররা এগুলো হাত বাড়ালেই পেয়ে যাচ্ছে আর এ কারণেই বেশিরভাগ মানুষ বিজনেসে লস খাচ্ছে তাই আপনাকে অবশ্যই আপডেটেড বলে টেস্ট কোন প্রোডাক্ট আনতে হবে আপনার সেক্টরে পাশাপাশি যদি আপনার কোন বিজনেস থেকেও থাকে তাহলে সেই বিজনেস কি আপনি চুপ থাকতে হবে মানে লেটেস্ট
প্রোডাক্ট রাখতে হবে লেটেস্ট সার্ভিস দিতে হবে আর আপডেটেড বা ভিন্ন জিনিসই হল কাস্টমারদের নিয়ে যেগুলো বাজারে এবেলেবেল নেই আশা করি কাস্টমেরস নীদ বলতে কি বোঝানো হচ্ছে সেটি ক্লিয়ার কিভাবে এই আপডেট প্রোডাক্ট গুলো পাবেন আপডেট প্রোডাক্ট গুলো নিয়ে চিন্তা করবেন সেটি আমি ভিডিও শেষে বলছি চতুর্থ যে বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে সেটি হল টাইম বিজনেস কে এমন কোন অবস্থায় রাখা যাবে না যেখানে আপনি না থাকলে বিজনেস চলবে না তাহলে আপনি বিজনেস নয় আপনার জন্য একটি জোট তৈরি করে ফেলেছেন আর বেশিরভাগ মানুষ বিজনেসের নামে এই ভুলটি করে তারা তাদের মূল্যবান সময়কে বেচে দিয়ে টাকা আর্ন করে তাই অবশ্যই সময়কে বিক্রি করার বিজনেস তৈরি করা যাবে না করতে হবে বিজনেস অটোমেটেড প্রসেস যেখানে আপনি না থাকলেও বিজনেস চলবে যেমন ধরুন আপনি নতুন প্রোডাক্ট বাজারে আনছে এবং আপনি খুব ছোট একজন বিজনেসম্যান এখন বিজনেস এর শুরুর দিকে আপনি নিজেই আপনার প্রোডাক্ট গুলো মার্কেটিং করলেন কিন্তু কিছুদিন পরেই যখন প্রোডাক্ট বাজারে হিট হয়ে যাবে তখন আপনার জায়গায় অন্য কাউকে নিয়োগ দিবেন এবং আপনার মূল্যবান সময় গুলো কে বাঁচিয়ে সেই সময়কে এমন কোন জায়গায় লাগাতে
হবে যেন আপনার বিজনেসটা আরও বড় করা যায় নতুন নতুন বিজনেস আইডিয়া বের করতে হবে নতুন নতুন সিস্টেম তৈরি করতে হবে আর বিশ্বাস করুন বড় বড় কোম্পানিগুলো এভাবে করেই আজ এতো বড় কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে এরপরের বিষয়টি হলো স্কেল এবং বিজনেস মানে আপনার বিজনেস টি যেন ক্রমাগত বাড়তে থাকে একটি জায়গায় যেন আটকে না যায় বিষয়টি আপনাদের কে একটু ক্লিয়ার করে ধরুন আপনি একজন পেইন্টার আপনি খুব ভালো ছবি আপনার এই ছবিগুলো অনেক চাহিদা রয়েছে বাজারে এখন আপনি একটু চিন্তা করুন সারা মাসে সারা বছরে আপনি কতগুলো পেইন্ট করতে পারবেন কারণ আপনার আনলিমিটেড বর্ডার থাকলেও আপনি সেই সার্ভিসগুলোর দিতে পারবেন না মানে আপনার বিজনেসের জন্য আপনার মত আর কেউ পেইন্ট করে দিতে পারবে না এর মানে হচ্ছে আপনার বিজনেস শিবা কাজটি স্কেল এবং না তাই অবশ্যই আপনার এমন কোন বিজনেস করতে হবে যেটি সিস্টেম তৈরি করবেন আপনার যে কাউকে দিয়েছো এই কাজটিকে করিয়ে নিতে পারবেন বর্তমানে ইন্টারনেট বেস্ট বিজনেস গুলো অনেক বেশি বাড়ছে কারণ এর যতই চাহিদা থাকে না কেন সার্ভিস দেওয়া পসিবল হচ্ছে কারণ এগুলোর সিস্টেম তৈরি করেছে একজন আকাশ করছে অনেক মানুষ আর ইউজ করছে আনলিমিটেড
মানুষ তাই অবশ্যই আপনার বিজনেস এমন হতে হবে সিস্টেম তৈরি করবেন আপনি কাজ করবে অনেক মানুষ আর দিন দিন বিজনেস অনেক বাড়বে
এখন আমি আপনাদের সাথে একটি বিজনেস আইডিয়া শেয়ার করব খুব সংক্ষেপে তার আগে একটি কথা বলি এখানে যে পাঁচটি বিজনেস রিলেটেড প্রবলেমটার কথা আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম যার কারণে আপনার বিজনেসের লোক হতে পাঁচটি বিষয়ে আপনার মুখস্ত না হওয়া পর্যন্ত অথবা আপনার বিজনেস সাকসেসফুল বিজনেস এ পরিণত হওয়া পর্যন্ত এই ভিডিওটি দেখতে থাকবেন আর অবশ্যই বিজনেস রিলেটেড কোন কিছু জানার থাকলে এই ভিডিওর নিচে কমেন্ট আমি প্রতিটি কমেন্টস পড়ার চেষ্টা করব এবং উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব এবার সেই বৃষ্টি নিয়ে কথা বলি টি-টোয়েন্টিতে যেতে বলেছিলাম নিজের প্রোডাক্ট সার্ভিসকে সবসময় আপডেটেড থাকতে হবে তাহলে কাস্টমার আপনার থেকেই প্রোডাক্ট নিবেন এখন আপনার প্রোডাক্ট প্রোডাক্ট কোথায় পাবেন কিভাবে পাবেন সেগুলো সব এখন আপনাদের সাথে এসে বিজনেস আইডিয়া টি শেয়ার করছি সবার প্রথমে আপনার যে ধরনের বিজনেস করতে আগ্রহী আপনার যে ধরনের বিজনেস রয়েছে সেই বিষয়ের লেটেস্ট প্রোডাক্ট গুগল এবং ইউটিউবে সার্চ দিন কিভাবে সার্চ দিবেন সেটি আমি একটু দেখিয়ে দিচ্ছি ইউটিউবে যদি পেয়ে যান তাহলে তো প্রডাক্টিভিটি দেখতে কিন্তু যদি গুগল বা অন্য কোথাও কোন প্রোডাক্টের ফটো
পান তখন সেই প্রোডাক্টটি নামটি নিয়ে ইউটিউবে সার্চ দিন তাহলে আপনি বুঝে যাবেন প্রোডাক্টটি আসলে কি আর আপনার জন্য এই প্রোডাক্টটি কি এই মুহূর্তে দরকার আপনি যখনই কোন প্রোডাক্ট পেয়ে যাবেন তখন সেটিকে কিভাবে অর্ডার করবেন আবার পাশাপাশি অনেকে ইনভেস্ট অনেক কম সেটি নিয়েও অনেকে অনেক টেনশনে থাকেন অনেকেই ইনভেস্ট 2000 টাকা 3000 টাকা পাঁচ হাজার টাকাও হতে পারে এখন কথা বল এত অর্থ প্রোডাক্ট আপনি কিভাবে অর্ডার করবেন ইমপোর্ট করতে পারবেন এর জন্য আপনারা স্ট্রেট ফ্রম চায়না এ প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন তাদের অফিস ঢাকা পুরান ঢাকায় আর এটি হলো তাদের ফেসবুক পেজ যেখানে আপনারা তাদের সকল কন্টাক্ট অ্যাড্রেস কন্টাক্ট নাম্বার পেয়ে যাবেন আপনারা আপনাদের যে কোন ফটো দিয়ে প্রোডাক্ট অর্ডার করতে পারেন অথবা ভিডিও দিয়েও প্রোডাক্ট অর্ডার করতে পারেন বা প্রোডাক্ট সম্বন্ধে জানতে তাদের সাপোর্ট টিম খুবই আন্তরিক আমি নিচে তাদের সাথে কথা বলেছি তারা বলেছে একটি প্রোডাক্ট থেকে শুরু করে যত কোয়ান্টিটির প্রোডাক্ট প্রয়োজন তারা ঠিক ততটুকু ইমপোর্ট করে নিতে পারবেন আপনারা তাদের সাথে কথা বলতে পারেন তাদের এই ফেসবুক পেজ টিল্লি আমি এই ভিডিও
ডিসক্রিপশন এবং কমেন্ট সেকশনে দিয়ে দিব আপনারা চাইলে সে জায়গা থেকে ক্লিক করে সেখানে যেতে পারেন পাশাপাশি আপনার যদি অন্য কোন রকমে দেওয়ার জন্য তাদের সাথে কন্টাক্ট করে বিজনেস টি চালিয়ে যেতে পারেন ইন্ডিয়াতে আমি এখনো এমন কোন স্মস পাই নি আপনারা একটু কষ্ট করে খুঁজে বের করে নিবেন যদি কেউ কোনো ভালো সখী পেয়ে যান সেটিও আমাকে অবশ্যই জানাবেন ভিডিওটি উপকারী বলে মনে হল এই ভিডিওটিতে একটি লাইক দিবেন কমেন্ট করে জানাবেন বিজনেস নিয়ে আপনার কোন কিছু জানার থাকলে আমি প্রতিটি কমিটি পড়ার চেষ্টা করবো 
thanks 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button