SEO trick

অন পেজ এসইও : নতুন আপডেট ২০২২

আজ আপনাদের অন পেজ এসইও কি এবং কিভাবে করতে সেই সম্পর্কে পূর্নাঙ্গ আলোচনা করবো।এসইও কি এবং কত প্রকার সবাই কম বেশি জানি।আর এসইও একটা গুরুত্ব বিষয় অন পেজ এসইও

অন পেজ এসইও : নতুন আপডেট ২০২২

বর্তমান সময়ে সবচেয়ে চাহিদা সম্পর্ন সেক্টর হলো ডিজিটাল মার্কেটিং।আর ডিজিটাল মার্কেটিং এর গুরুত্ব ও বৃহত্তর বিষয় হলো এসইও অর্থাৎ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন।যারা ব্লগিং নিয়ে কাজ করেন তারা এসইও সম্পর্কে কম বেশি ধারনা আছে।

অন পেজ এসইও : নতুন আপডেট ২০২২

ব্লগিং এ সফলতা পেতে এসইও কি এবং কিভাবে করতে এটা জানা অত্যাবশক।বিষয়টা একটা উদাহরন দিয়ে বোঝায়।মনে করে আপনি একটি সাইট তৈরি করলেন সার্চ ইঞ্জিনের সাথে কানেক্ট করলেন।এরপর আরটিকেল লিখলেন “ডাটা সাইন্স সম্পর্কে”।কিন্ত আপনি আরটিকেলে কোনো ভিজিটর পাচ্ছেন না।কারন এসইও করেন নাই এতে আপনার আইটিকেলের বিষয় গুগল বোট বুঝতে পারে নি।

অন পেজ এসইও : নতুন আপডেট ২০২২

সার্চ ইঞ্জিন এ আরটিকেল Rank করাতে আরটিকেল সুন্দরভাবে অপটিমাইজ করে সার্চ ইঞ্জিনের বোধগাম্য করতে হবে।আর এটা করার জন্য অন পেজ এসইও এর বিকল্প নেই।এই বিষয় পূর্নাঙ্গ জ্ঞান রাখতে হবে অর্থাৎএক কথায় Expert হওয়া লাগবে।না হলে Rank করাতে পারবেন না।কারন বর্তমানে দিন যাচ্ছে প্রতিযোগিতা বাড়ছে।আপনি যে বিষয় আরটিকেল লিখবে সে বিষয় অলরেডি অনেক কোয়ালিটি সম্পর্ন আরটিকেল রয়েছে সার্চ ইঞ্জিনে।

অন পেজ এসইও কি?

অন পেজ এসইও : নতুন আপডেট ২০২২

অন পেজ এসইও হলো সার্চ ইঞ্জিনে Rank করার জন্য কোন ওয়েবসাইটের অভ্যান্তরীন ওয়েব পেজকে অপটিমাইজ করার একটি প্রক্রিয়া।ওয়েবসাইটের গুরুত্বপূর্ন বিষয় ট্রাফিক

কিওয়ার্ড রিচার্স

অন পেজ এসইও ক্ষেত্রে কিওয়ার্ড রিচার্স খুব গুরুত্বপূর্ন বিষয়।সঠিকভাবে কিওয়ার্ড সিলেকশন না করলে Rank করাতে পারবেন এবং ট্রাফিক পাবেন না।ধরুন আপনি এমনি কিওয়ার্ড আরটিকেলের পুরো টপিক কভার করলেন দেখাগেল।আপনি যে কিওয়ার্ড সিলেক্ট করছেন সেটার কোনো সার্চ ভলিউম নেই বা কিওয়ার্ড ডিফিকাল্টি অনেক বেশি যা আপনার সাইট এর জন্য Rank করানো মুশকিল।কিওয়ার্ড রিচার্স করলে সবচেয়ে ভালো হয় লং কিওয়ার্ড সিলেক্ট করা এতে Rank করাতে সুবিধা হবে।

অন পেজ এসইও : নতুন আপডেট ২০২২

আকষর্নীয় টাইটেল নির্বাচন

আকষর্নীয় টাইটেল নির্বাচন না করলে প্রথম পাতায় Rank করা সত্তেয় ট্রাফিক পাবেন না।সার্চ ইঞ্জিন কোনো বিষয় সার্চ করলে প্রথম পাতায় ১১ টা রিজাল্ট শো করে এখানে এক বিষয় ১১ টা আরটিকেল থাকে সেহেতু।সেহেতু আপনাকে এমন একটা আকর্ষীন টাইটেল দিতে হবে যা দেখে সার্চকারী আপনার আরটিকেল পড়ার জন্য আসবে।

কিওয়ার্ডের ব্যবহার

একটা সময় ছিল কোনো টার্গেট কিওয়ার্ড Rank করাতে।সেই কিওয়ার্ড বারবার ব্যবহার করা হতো।কিন্ত এখন সময়ের সাথে প্রযুক্তির উন্নিতিতে গুগুল বোট ও এলগোরিদম আরো উন্নত করা হয়েছে।এখন বেশি কিওয়ার্ড ব্যবহার করলে ওভার অপটিমাইজেশন বা কিওয়ার্ড স্টাফিং ধরে।তাই বর্তমানে কিছু সঠিক জায়গায় কিওয়ার্ড ব্যবহার করা উত্তম।

  • টাইটেলে টার্গেট কিওয়ার্ড ব্যবহার।
  • পারমানলিংকে ছোট রাখা ও কিওয়ার্ড ব্যবহার
  • আপনার আরটিকেল প্রথম প্যারেতে ও প্রথম ১০০ শব্দের মধ্যে কিওয়ার্ড ব্যবহার করা
  • হেডিং ট্যাগে কিওয়ার্ড ব্যবহার করা

মেটা ডিসক্রিপশন অপটিমাইজেশন

মেটা ডিসক্রিপশনের মাধ্যমে আরটিকেলে মূল বিষয় বস্তুর সংক্ষিপ্ত ধারনা পেয়ে থাকি।মেটা ডিসক্রিপনে টার্গেটেড কিওয়ার্ড ব্যবহার করবেন।এটাতে আরটিকেল সব বিষয়বস্তু সংক্ষিপ্ত আকারে আকর্ষনীয় লিখবেন।এতে ভিজিটর পাবেন।দেখা আরটিকেলের টাইটেলে এক বিষয় লিখলেন আর মেটা ডিসক্রিপশনে আর বিষয় লিখলেন।এটা ভিজিটর বিভ্রান্ত হবে।

ওয়েবসাইট স্পিড অপটিমাইজেশন

ওয়েবসাইটের স্পিড আপটিমাইজেশন খুবই জরুরী।কারন সাইটের স্পিড যদি কম হয় এসইও উপর প্রভাব পড়তে পারে।কেই যদি ওয়েবসাইট ভিজিট করতে এসে অনেক সময় লোড নেয় তাহলে সে নিশ্চিত ব্যাক বাটন প্রেস করে করে সে বের হয়ে যাবে এবং এটা যদি কোনো পোষ্টের ক্ষেত্রে হয় তাহলে বাউন্স রেট খাবে Ranking হারাবে।এছাড়া বর্তমানে ওয়েবসাইটের স্পিড Ranking Fector হিসেবে গন্য করা হয়।ওয়ার্ডপ্রেসে স্পিড অপটিমাইজেশনের জন্য বিভিন্ন প্লাগিন আছে গুগল সার্চ করলে পেয়ে যাবে।আমি যে প্লাগিন ব্যবহার করি Wp Rocket।এটা জনপ্রিয় একটা প্লাগিন।

পারমানলিংক নির্বাচন

পারমানলিংক নির্বাচন অন পেজ এসইও একটা অংশ।পারমানলিংকে টার্গেট কিওয়ার্ড ব্যবহার করবেন।এতে গুগল লিংক দেখে বুঝতে পারবে আরটিকেলের মূল টপিক আসলে কি।পারমানলিংকে সংখ্যা ব্যবহার করবেন।লিংকে হাইপেন – ব্যবহার করতে পারেন।

মানসম্মত কনটেন্ট লেখা

“Content Is King” বলে একটা কথা।আসলে কথা সত্যি।মানসম্মত কনটেন্ট বলতে কোনো বিষয় সুন্দরভাবে উপস্থাপন করে এবং সাবলীল ভাষায় লেখাকে বোঝায়।অনেকে দেখা যায় কনটেন্ট লিখতে এসে “আপনি কেমন আছেন? আমি ভালো আছি” এইসব কথা বার্তা বলে কনটেন্ট এর মান নষ্ট করে।আপনার কাছে ভিজিটর ভালো বা মন্দ এটা জানতে আসে না।সবসময় ইনমরমেটিভ ও বড় কনটেন্ট লিখার চেষ্টা করবেন।মানসম্মত কনটেন্ট Ranking Fector হিসেবে কাজ করে।

ইমেজ অপটিমাইজেশন

সবসময় আরটিকেল রিলেটেড ছবির ব্যবহার করবেন।এছাড়া ছবি আকর্ষীন হলেও অনেক সময় ভিজিটরদের আকৃষ্ট করে।ছবি ব্যবহারের আগে একটা কথা মাথায় রাখবেন ছবি যেন খুব বেশি বড় সাইজের না হয়।৫০ কেবির কম রাখা ভালো।বড় হলে সাইটের স্পিডের উপর প্রভাব পড়বে অনেক সময় লোড নিবে।সাইজ বড় হলে ইমেজ কমপ্রেস টুল ব্যবহার করে কমিয়ে নিবেন।ছবির নাম রিনেম করে কিওয়ার্ড দিবেন।তাছাড়া গুরুত্বপুর্ন বিষয় Alt ট্যাগে আপনার টার্গেট কিওয়ার্ড দিবেন

facebook contact me

আল্লাহ হাফেজ।

সেনাবাহীনি বা অন্য কোন বাহীনিতে আপনার কোন সমস্যা না থাকার পর ও কেন আপনাকে মাঠ থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়

এই বিষয় কোনো প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করবেন।

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button